০৮:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাতীয় পতাকা টাঙ্গাতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে স্কুল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

 

মোঃ রাজু মিয়া বিশেষ প্রতিনিধিঃ

রাজধানীর কদমতলীর পলাশপুর আইডিয়াল স্কুলে জাতীয় পতাকা টাঙ্গাতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে রিয়ান বাদশা নামে (১৪ বছর) এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে।

বুধবার( ৬ ই মার্চ) সকাল দশটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে কয়েকজন শিক্ষক অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সকাল এগারোটার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতকে(ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসা শিক্ষক জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, রিয়ান শনির আখরা পলাশপুর আইডিয়াল স্কুলের নবম শ্রেণী শিক্ষার্থী ছিল, আজ সকালের দিকে স্কুলের জাতীয় পতাকা পাইপে টাঙ্গাতে গেলে সে বিদ্যুৎ ইস্পৃষ্ট হয়ে পড়ে যায়, পরে অচেতন অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল নিয়ে আসলে চিকিৎসক রিয়ানকে মৃত্যু বলে জানান।

তিনি আরও বলেন, মৃত রিয়ানের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার, ত্রিশাল থানার,বনগ্রাম গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে। বর্তমানে শনির আখড়া ৫ নম্বর রোডের একটি ভাড়া বাসায় বাবা মার সাথে থাকতো। তিন বোন একমাত্র ভাই সে ছিল ছোট। তার বাবা সিএনজি চালক।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মোহাম্মদ বাচ্চু মিয়া বলেন, কদমতলীতে এক স্কুল ছাত্র বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে ঢাকা মেডিকেলে মারা যান। তার আত্মীয়-স্বজন এখন পর্যন্ত আসে নাই ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জরুরি বিভাগ মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে।

Tag :

আপলোডকারীর তথ্য

Dainik Jobab

আমাদের অনলাইন নিউজপেপারে আপনাদের স্বাগতম। আমাদের সাথে থাকার জন্য আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।
জনপ্রিয় সংবাদ

চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকের হামলা, গাড়ি ভাংচুর, দুই ডিবি পুলিশ আহত

জাতীয় পতাকা টাঙ্গাতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে স্কুল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

আপডেট সময় ১১:১০:৪৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৬ মার্চ ২০২৪

 

মোঃ রাজু মিয়া বিশেষ প্রতিনিধিঃ

রাজধানীর কদমতলীর পলাশপুর আইডিয়াল স্কুলে জাতীয় পতাকা টাঙ্গাতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে রিয়ান বাদশা নামে (১৪ বছর) এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে।

বুধবার( ৬ ই মার্চ) সকাল দশটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে কয়েকজন শিক্ষক অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সকাল এগারোটার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতকে(ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসা শিক্ষক জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, রিয়ান শনির আখরা পলাশপুর আইডিয়াল স্কুলের নবম শ্রেণী শিক্ষার্থী ছিল, আজ সকালের দিকে স্কুলের জাতীয় পতাকা পাইপে টাঙ্গাতে গেলে সে বিদ্যুৎ ইস্পৃষ্ট হয়ে পড়ে যায়, পরে অচেতন অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল নিয়ে আসলে চিকিৎসক রিয়ানকে মৃত্যু বলে জানান।

তিনি আরও বলেন, মৃত রিয়ানের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার, ত্রিশাল থানার,বনগ্রাম গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে। বর্তমানে শনির আখড়া ৫ নম্বর রোডের একটি ভাড়া বাসায় বাবা মার সাথে থাকতো। তিন বোন একমাত্র ভাই সে ছিল ছোট। তার বাবা সিএনজি চালক।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মোহাম্মদ বাচ্চু মিয়া বলেন, কদমতলীতে এক স্কুল ছাত্র বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে ঢাকা মেডিকেলে মারা যান। তার আত্মীয়-স্বজন এখন পর্যন্ত আসে নাই ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে জরুরি বিভাগ মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে।